Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

ভূমি রেজিস্ট্রেশনে দুর্ভোগের কারণ জানতে চায় সংসদীয় কমিটি

পিপলস ভয়েস ডেস্ক:
সাব রেজিস্ট্রার অফিসগুলোতে ভূমি রেজিস্ট্রেশন করতে এসে নানা ধরনের ভোগান্তিতে পড়তে হয় ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়কেই। সরকার নির্ধারিত ফির বাইরে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগও দীর্ঘদিনের।

এছাড়া বিভিন্ন কাগজ পত্রাদির নাম করেও মানুষকে হয়রানি করা হয়। অহেতুক এসব জনভোগান্তি সৃষ্টির অভিযোগ এসেছে এ সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটিতেও।

জাতীয় সংসদ ভবনে বুধবার (৮ মে) অনুষ্ঠিত আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা। কারা এই জনভোগান্তি সৃষ্টি করছে তাদের শনাক্ত করে মন্ত্রণালয়কে এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন কমিটিতে দাখিল করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সংসদ সচিবালয় জানায়, বৈঠকে দেশের জনগণের দুর্ভোগ লাঘবে ভূমি রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি ডিজিটাইজেশন, ভূমি রেজিস্ট্রেশনের ফি নির্ধারণসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। কমিটি রেজিস্ট্রেশন ফি কিভাবে নির্ধারণ করা হয় সে বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন পরবর্তী বৈঠকে উপস্থাপন করার সুপারিশ করে।

একইসঙ্গে জনদুর্ভোগ লাঘবে কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায়, জনদুর্ভোগের জন্য কারা জড়িত এবং কিভাবে তাদের হাত থেকে জনগণকে সহায়তা প্রদান করা যায় সে বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রস্তুত করে কমিটির পরবর্তী বৈঠকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

কমিটির আগামী বৈঠকে এটর্নি জেনারেল, সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার এবং ভূমি সচিবের উপস্থিতিতে ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইইব্যুনাল গঠন নিয়ে আলোচনা করা এবং অনতিবিলম্বে ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন করার সুপারিশ করে।

কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন খসরুর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য বেগম সাহারা খাতুন, মো. শামসুল হক টুকু, মো. আব্দুল মজিদ খান, শেখ ফজলে নুর তাপস, শামীম হায়দার পাটোয়ারী, গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার এবং আবদুস সাত্তার ভূঞা অংশগ্রহণ করেন।

লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ মো. জহিরুল হক, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মচারীবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।