Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

রোবট বধূর অভিব্যক্তি হবে সত্যিকারের নারীর মতো

আইসিটি ডেস্ক:
চীনে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স) সম্পন্ন ‘রোবট বধূ’ তৈরি করেছে একদল গবেষক।

এই আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্সসম্পন্ন রোবট থাকার কারণে ভবিষ্যতে আর আসল মানুষকে বিয়ে করতে হবে না বলে দাবি করছে চাইনিজ মিডিয়া সোহুর

সোহুর জানিয়েছে, ওই রোবটের মুখ ও অভিব্যক্তি হবে সত্যিকারের নারীর মতো, তার ত্বকের তাপমাত্রাও হবে মানুষের মতোই। এরা আদতে সেক্স রোবট হলেও ঘরোয়া কাজ করতে পারবে এবং মানুষের সঙ্গে কথাবার্তা বলতে পারবে। ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী তৈরি করা হবে এই রোবট। এর দাম হতে পারে প্রায় ৩ হাজার মার্কিন ডলারের মতো।

বেইজিংয়ের ক্যাপিটাল নরমাল ইউনিভার্সিটির প্রাক্তন অধ্যাপক লি ইউয়ানহুয়া জানান, চীনে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যা বেড়েছে আসলে এক-সন্তান নীতির কারণে। সে দেশে এখন প্রতি ১০০ নারীর জন্য রয়েছে ১০৪.৬৪ জন পুরুষ। এ কারণে অনেক পুরুষ বিয়ে করার জন্য কাউকে খুঁজে পাচ্ছে না। প্রায় ৬০ লাখ অবিবাহিত পুরুষের জন্য তৈরি হয়েছে ‘ব্যাচেলর প্রবলেম’।

চাইনিজ একাডেমি অব সোশ্যাল সায়েন্সেস জানায়, ২০২০ সাল নাগাদ চীনে ২৪ মিলিয়ন সিঙ্গেল পুরুষ থাকবে, যারা বিয়ে করার জন্য মেয়ে পাবে না। তাদের কথা মাথায় রেখেই ওই ‘রোবট বধূ’ তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে এই রোবট তৈরির পেছনে চীন সরকারের অসাধু উদ্দেশ্য থাকতে পারে বলে কেউ কেউ মনে করছেন। চীন পর্যবেক্ষক গু হে সন্দেহ করেন, এই রোবট একজন মানুষের ঘরের ভেতরের ছবি, ভিডিও, এমনকি কথোপকথন রেকর্ড করতে পারে এবং গুপ্তচরের কাজ করতে পারে।

এই রোবট নেটিজেনদের সমালোচনারও শিকার হয়েছে। এমনকি এমন রোবট মানুষের বিলুপ্তির কারণও হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সূত্র: দি এপক টাইমস