Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
মিয়াঁদাদ ও কোহলিকে পেছনে ফেললেন বাবর

মিয়াঁদাদ ও কোহলিকে পেছনে ফেললেন বাবর

স্পোর্টস ডেস্ক:
দীর্ঘ দশ বছরের খরা কাটিয়ে পাকিস্তানের আবার ফিরলো ক্রিকেট। এমন দিনকে আরো বেশি স্মরণীয় করে রাখলেন পাকিস্তানের সহ অধিনায়ক বাবর আজম। তিন বছর আগে এমন দিনেই ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন বাবর। গতকালও করেছেন সেঞ্চুরি। কিন্তু এ মহত্য অনেক বেশি। কারণ এদিনের সেঞ্চুরির মধ্য দিয়ে তিনি পেছনে ফেলেছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান জাভেদ মিয়াঁদাদ ও ভারতের রান মেশিন খ্যাত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে।

এদিন সেঞ্চুরি করে ওয়ানডে ক্রিকেটে তৃতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১১ সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে ভারতে কোহলিকে পেছনে ফেলেন তিনি। যেখানে কোহলির ১১ সেঞ্চুরি এসেছে ৮২ ইনিংস থেকে সেখানে বাবর খেলেছেন মাত্র ৭১ ইনিংস। এ তালিকায় দ্রুততম হিসেবে প্রথমে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম আমলা। তিনি খেলেছেন মাত্র ৬৪ ইনিংস। দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে রয়েছেন আরেক আফ্রিকান কুইন্টন ডি কক। তার লেগেছে ৬৫ ইনিংস।

পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান জাভেদ মিয়াঁদাদের ৩২ বছর আগে করা এক রেকর্ড ভেঙেছেন বাবর। ১৯৮৭ সালে পাকিস্তানের হয়ে ওয়ানডেতে এক পঞ্জিকাবর্ষে দ্রুততম হাজার রানের রেকর্ড গড়েন বড়ে মিয়া। পাকিস্তান ক্রিকেটের ‘বড়ে মিয়া’ খ্যাত মিয়াঁদাদ ১৯৮৭ সালে ২১ ইনিংসে করেছিলেন এক হাজার রান। সেখানে ২৫ বছর বয়সী এ ব্যাটসম্যানের লেগেছে মাত্র ১৯ ইনিংস।

পাক ক্রিকেটার বাবর আজম ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই দারুণ ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করে যাচ্ছেন। বাবরকে অনেক পাকিস্তানি দর্শকেরা কোহলির সঙ্গেও তুলনা করেন। অবশ্য তা যে অমূলক নয় তার প্রমাণ তিনি বারবারই দিয়ে যাচ্ছেন।

এর আগে, টি-টোয়েন্টিতে দ্রুততম সময়ে ১০০০ রান পূরণে বিরাট কোহলিকে পেছনে ফেলেছিলেন বাবর আজম।