Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে আবরার হত্যাকাণ্ড

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে আবরার হত্যাকাণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের(বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকাণ্ডের ঘটনা বিশ্বগণমাধ্যমও ফলাও করে ছাপিয়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপি, যুক্তরাষ্ট্রের ভয়েস অব আমেরিকা, কাতারভিত্তিক আল-জাজিরা, বিবিসিসহ বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যম আবরার হত্যাকাণ্ডের খবর ছাপিয়েছে।

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, ভারতের সঙ্গে পানি বণ্টন চুক্তি নিয়ে সরকারের সমালোচনা করায় ক্ষমতাসীন দলের কর্মীরা আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এ নিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিবাদ চলছে। ন্যায়বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে এসেছেন। শিক্ষকরাও যোগ দিয়েছেন সেই বিক্ষোভে।

এএফপি জানায়, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে কয়েকজন সদস্য হত্যা, সহিংসতা ও লুটতরাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রলীগ কুখ্যাতি অর্জন করেছে।

গত বছর শিক্ষার্থীদের সরকারবিরোধী বিক্ষোভ দমনে সংগঠনটি সহিংসতার আশ্রয় নিয়েছে। একটি বেপরোয়া বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর ওই বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল।

গত মাসে একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধানের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপাতি ও সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

দ্য হিন্দুর খবরে বলা হয়েছে, ভারতের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি নিয়ে আবরার ফাহাদ প্রশ্ন তুলেছিলেন।

পত্রিকাটি জানায়, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠনের কর্মীরা জেরা করার সময় তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন।

তার বন্ধু দ্য হিন্দুকে বলেন, আবরার ফাহাদকে একটি রুমে আটকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এসময় ভারত ও আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে পোস্ট দেয়ায় তিনি শিবিরের সঙ্গে যুক্ত কিনা, সেই প্রশ্নও করা হয়েছে।

দোহাভিত্তিক আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ছাত্রলীগের কর্মীরা বুয়েটের এক শিক্ষার্থীকে হত্যার পর ঢাকা ও রাজশাহীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজার হাজার শিক্ষার্থী বিক্ষোভ করেছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আবরারের এক সহপাঠী বলেন, কয়েকটি ফেসবুক পোস্টের কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে। এটা কাণ্ডজ্ঞানহীন। আমরা ন্যায়বিচার চাচ্ছি।