Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
আবরারের রুমমেট মিজান আটক

আবরারের রুমমেট মিজান আটক

অনলাইন রিপোর্ট::
বুয়েটের শেরেবাংলা হল থেকে আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় আবরারের রুমমেট মিজানকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার বুয়েটের শেরেবাংলা হল থেকে  তাকে  আটক করে ডিবি পুলিশ।

এর আগে সকালে রাজধানীর সবুজবাগ এলাকা থেকে বেলা ১১টার পর আবরার হত্যার প্রধান সন্দেহভাজন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েটের ছাত্রলীগের নেতা অমিত সাহাকে আটক করে ডিবি পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিবির জয়েন্ট কমিশনার মাহাবুব আলম।

ফাহাদকে যে কক্ষে খুন করা হয় সেই ২০১১ কক্ষের বাসিন্দা অমিত। হত্যাকাণ্ডের আগে ১৭তম ব্যাচের (ফাহাদের সহপাঠী) এক শিক্ষার্থীকে অমিত সাহা মেসেঞ্জারে জিজ্ঞেস করেন, আবরার ফাহাদ কি হলে আছে? এ ধরনের একটি স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ১৭তম ব্যাচের ওই শিক্ষার্থী নিজের পরিচয় প্রকাশ করতে না চাওয়ায় তারই এক সিনিয়র এ বিষয়টি ফেসবুকে প্রকাশ করেন।

আবরার ফাহাদ হত্যার পরপরই গ্রেপ্তার হন বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১০ জন। বহিস্কার করা হয় ১১ জনকে। কমিটির সদস্যরা জানান, আবরারের বাবার দায়ের করা মামলায় ১৯ জনকে আসামী করা হলেও প্রাথমিক তদন্তে ১১ জনের বিরুদ্ধে সুষ্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া গেছে।

রোববার রাত ২টার দিকে বুয়েটের শের-ই-বাংলা হলের সিঁড়ি ঘর থেকে তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই হলের শিক্ষার্থীদের বরাত দিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সন্ধ্যা ৭টার দিকে আবরারকে কয়েকজন ডেকে নিয়ে যায়। পরে, রাত ২টার দিকে হলের দ্বিতীয় তলার সিঁড়িতে তার মরদেহ পাওয়া যায়। মঙ্গলবার, সকাল ১০টায় কুমারখালীর রায়ডাঙ্গায় আবরারের গ্রামের বাড়িতে তৃতীয় ও শেষ জানাজা শেষ হবার পর পারিবারিক কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়।