Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
বুয়েটে রাজনীতি নিষিদ্ধ, ১৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার

বুয়েটে রাজনীতি নিষিদ্ধ, ১৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার

অনলাইন রিপোর্ট::
আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় তুমুল আন্দোলনের মুখে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) সব ধরনের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড নিষিদ্ধ করেছে কর্তৃপক্ষ। পাঁচদিন ধরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নেয়।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় বুয়েটের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক বৈঠকে এ ঘোষণা দেন বুয়েটের ভিসি অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম।

বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের দাবিতে আন্দোলন বিষয়ে গত বুধবার বিকেলে গণভবনে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশনে অংশগ্রহণ এবং ভারত সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সব আন্দোলনে ছাত্ররাই অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। আমিও ছাত্ররাজনীতি থেকে উঠে এসেছি। এখন একটা ঘটনা ঘটেছে বলেই ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে কেন? তবে বুয়েট চাইলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে। এতে হস্তক্ষেপ করব না।

এরপরই গতকাল বুয়েট প্রশাসন তাদের ক্যাম্পাসে চিরতরে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করে। এর আগে একইদিন আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার ১৯ আসামিকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে বুয়েট প্রশাসন।

আবরারের বিষয়ে উপাচার্ অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম বলেন, আবরারের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে আর মামলার খরচ বহন করবে বুয়েট কর্তৃপক্ষ। বিচারকাজ দ্রুত শেষ করতে সরকারকে চিঠি দেয়া হবে।

ভিসি আরও বলেন, হলগুলোয় র‌্যাগিংয়ের নামে শিক্ষার্থীদের ওপর নির্যাতনের বিষয়ে দ্রুততম সময়ে তদন্ত কমিটি করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব ক্যাম্পাসের মধ্যে সিসিটিভি বসানো হবে। এ জন্য সময়ের প্রয়োজন।

বক্তব্যের শুরুতেই আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কাছে ক্ষমা চেয়ে ভিসি বলেন, ‘আমার কিছুটা ভুল হয়েছে। আমি তোমাদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমার ভুল আমি স্বীকার করেছি, তোমরা আমাকে ক্ষমা করে দাও। আবরার আমার সন্তানের মতো ছিল। তোমাদের যেমন কষ্ট লাগছে তার মৃত্যুতে আমারও অনেক খারাপ লেগেছে। এটি আমি মেনে নিতে পারিনি। তার মৃত্যুতে তোমরা দুঃখ পেয়েছ, আমিও পেয়েছি। আমরা সকলেই মর্মাহত।’

শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও বিভিন্ন অনুষদের ডিনরাও এসময় উপস্থিত ছিলেন। এর আগে আলোচনায় অংশ নিতে শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে সারিবদ্ধভাবে অডিটোরিয়ামে প্রবেশ করেন। অডিটোরিয়ামে প্রবেশের জন্য সাংবাদিকদের প্রেস কার্ড দেন শিক্ষার্থীরা।

ভারতের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় খুন হন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ।